যেভাবে ফেসবুক পেজ ভেরিফাই করবেন

Posted by

ফেসবুক ভেরিফায়েড প্রোফাইল বা পেজের কথা প্রায়ই শোনা যায়৷  ফেসবুক ভেরিফিকেশন আসলে কী? প্রোফাইল বা পেজ ভেরিফাই করানোর উপায়ই বা কী?

পেজ ভেরিফাইজনপ্রিয় কোনও ব্যক্তিত্ব বা প্রতিষ্ঠানের সোশ্যাল মিডিয়ার প্রোফাইল বা পেজের দিকে তাকালে লক্ষ্য করবেন পাশে একটা যাচাইকৃত প্রোফাইল বা নীল টিক চিহ্নযুক্ত ব্যাজ দেওয়া রয়েছে৷

এই যাচাইকৃত প্রোফাইল বা নীল টিক চিহ্নযুক্ত ব্যাজের মর্ম অনেকেই জানেন৷ অর্থাৎ প্রোফাইল বা পেজটি ওই প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব ভেরিফিকেশন পদ্ধতিতে স্বীকৃত৷

ফেসবুক সবার জন্য উন্মুক্ত, যে কেউ ইচ্ছা করলেই তাঁর নিজের প্রোফাইল ও পেজ তৈরি করতে পারেন৷

একই সঙ্গে ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের পরিচয়পত্র উল্লেখ করার প্রয়োজনীয়তা নেই বলে একজন ব্যক্তি অন্য কারও নামেও অ্যাকাউন্ট ​তৈরি করতে পারেন৷

এমনকি অন্য প্রতিষ্ঠানের নামে ফেসবুক পেজ তৈরি করে নিয়মিত হালনাগাদও করা যায়৷

বিখ্যাত প্রতিষ্ঠান অথবা ব্যক্তির নামে এমন ভুয়া অ্যাকাউন্ট বা পেজ থেকে প্রচারণা চালানো হলে ওই ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের জন্য সেটি ক্ষতির কারণও হতে পারে৷

মসরুর জুনাইদ-এর ব্লগে আরও পড়ুন- 

মিথ্যা বা ফেক অ্যাকাউন্ট থেকে মূল অ্যাকাউন্ট আলাদা করে দেখানোর জন্য ফেসবুকের একটি নিজস্ব ভেরিফিকেশন পদ্ধতি রয়েছে৷ ​

এই ভেরিফিকেশনে উত্তীর্ণ পাতাগুলোর নামের পাশে নীল রঙের একটি টিক চিহ্ন থাকে৷ পেজের পাশাপাশি ফেসবুক প্রোফাইলও একইভাবে ভেরিফায়েড হতে পারে৷

সাধারণত তারকাখ্যাতি-সম্পন্ন ব্যক্তি, সেলিব্রিটি, সাংবাদিক, সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রিয় প্রতিষ্ঠান ও ব্র্যান্ডের পেজ ভেরিফাই করে থাকে ফেসবুক৷

ফেসবুকের নীতি বলছে, কেবল প্রামাণ্য বা বৈধ অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রেই যাচাইকৃত প্রোফাইল বা নীল টিক চিহ্নযুক্ত ব্যাজ দেওয়া হয়৷

সেক্ষেত্রে প্রথমে ইচ্ছুক ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান ও ব্র্যান্ডকে এই যাচাইকৃত প্রোফাইল বা নীল টিক চিহ্নযুক্ত ব্যাজের জন্য ফেসবুকের কাছে আবেদন করতে হয়৷

আবেদন পাওয়ার পর ফেসবুক কর্তৃপক্ষ অ্যাকাউন্টটিকে ভালো করে পরীক্ষা করে দেখেন ৷

এর প্রোফাইল বা পেজের জন্য যাচাইকৃত প্রোফাইল বা নীল টিক চিহ্নযুক্ত ব্যাজ প্রদান করে থাকে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ৷

ফেসবুকে প্রোফাইল বা পেজ ভেরিফাই করবেন যেভাবে-

ফেসবুকের যথাযথ নিয়ম অনুসরণ করে আবেদন করলে প্রোফাইল বা পেজে যাচাইকৃত প্রোফাইল বা নীল টিক চিহ্নযুক্ত ব্যাজ পাওয়া যায়।

প্রোফাইল বা পেজের সত্যতা নিশ্চিতকরণ ও গ্রহণযোগ্যতা বাড়াতে দীর্ঘদিন ধরেই এই সুবিধা দিচ্ছে ফেসবুক।

ফেসবুক সাধারণত পেজ এবং প্রোফাইলে যাচাইকৃত প্রোফাইল বা নীল টিক চিহ্নযুক্ত ব্যাজ  দিয়ে থাকে।

আপনি যদি আপনার প্রোফাইল বা পেজে যাচাইকৃত প্রোফাইল বা নীল টিক চিহ্নযুক্ত ব্যাজ পেতে চান তাহলে প্রথমেই পেজের সব তথ্য পূরণ করা আছে কিনা পরীক্ষা করুন।

এরপর ‘Request a Verified Badge‘-প্রথমে এই ঠিকানায় প্রবেশ করুন।

পেজ ভেরিফাই– এরপর পেজ বা প্রোফাইল নির্বাচন করুন।

– প্রোফাইল হলে নির্ধারিত বক্সে প্রোফাইলে লিংক দিন।

– অফিসিয়াল আইডি (যেমন- জাতীয় পরিচয়পত্র, পাসপোর্ট, ফোন বা ইউটিলিটি বিল ইত্যাদি) এর স্ক্যান কপি আপলোড করুন।

– অফিসিয়াল পেজের লিঙ্ক দিন।

মসরুর জুনাইদ-এর ব্লগে আরও পড়ুন- 

– Additional Information বক্সে কেন পেজ ভেরিফাই করতে চান তা উল্লেখ করুন।

– এবার Send বাটনে ক্লিক করে সাবমিট করুন।

তথ্য সাবমিট করার কয়েক মিনিটের মধ্যেই আপনার আবেদনের অবস্থা জানাবে ফেসবুক। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই আপনার পেজ ভেরিফাই ব্লু মার্কটি দেখাবে।

Mosrur Zunaid, the Editor of Ctgtimes.com and Owner at BDFreePress.com, is working against the media’s direct involvement in politics and is outspoken about @ctgtimes's editorial ethics. Mr. Zunaid also plays the role of the CEO of HostBuzz.Biz (HostBuzz Technology Limited).

মতামত দিন